এক হত দরিদ্র যুবক

এক হত দরিদ্র যুবক sufibad

এক হত দরিদ্র যুবক

নতুন ব্যবসায় দিয়েছেন। প্রতিদিন ২৫ পয়সা, ৫০ পয়সা করে আপন পীরের জন্য ব্যবসা করে জমায়। মাস শেষে ছোট একটা পুটলি করে টাকা গুলো দরবার নিয়ে আসলো। পীর কেবলাজানের স্বাক্ষাতের সময় সামনে গেলে পীর কেবলাজানের হাত মুবারক পুটলিটা দিলেন। পীর কেবলাজান বললেন, কি এগুলো বাবা! যুবক বললো, হুজুর আমি হত দরিদ্র মানুষ অল্প অল্প করে টাকা গুলো জমিয়েছি। হুজুরপাক বললেন, বাবা! কত টাকা হবে? যুবক বললো, ” হুজুর ১৫-১৬ টাকা হবে।”
হুজুর কেবলাজান পুটলি নিজের কাছে রেখে দিলেন যতক্ষন স্বাক্ষাত দিচ্ছিলেন খাদেমদের হাতে দিলেন না। স্বাক্ষাত শেষে উঠে যাওয়ার সময় পকেটে নিলেন (ঐ সময় বিত্তবান জাকেরগণ হাজার হাজার টাকা নজরানা দিতো)।
আজ আমরা বড় অসহায় দয়াল বাবা। কোথায় পাবো এই আদর এই ভালোবাসা।
একবার দেখা দাও ওহে প্রানো ধন

আরো পড়ুনঃ 

Related posts

Leave a Comment